হাইতির মার্কিন দূতাবাসের সামনে গোলাগুলি

হাইতির রাজধানী পোর্ট-অ প্রিন্সে মার্কিন দূতাবাসের সামনে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় দেশটির রাজধানীতে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয় সময় গত সোমবার দূতাবাসের কূটনৈতিক ভবন চত্বরে গুলির শব্দ শোনা যায়। তখন নিরাপত্তা বেষ্টনীর অভ্যন্তরে আশ্রয় নেন দূতাবাসের কর্মীরা।

হাইতির মার্কিন দূতাবাসের পক্ষ থেকে এ ঘটনার পরে সতর্কতা জারি করা হয়। টুইটের মাধ্যমে ওই দেশে বসবাসকারী মার্কিন নাগরিক ও জনসাধারণের উদ্দেশ্যে সতর্কবার্তা দেয়া হয়। সেই টুইটে বলা হয়, যারা দূতাবাসের মধ্যে রয়েছেন তারা বাইরে যাবেন না। আর যদি কেউ মার্কিন দূতাবাসের উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে থাকেন তাহলে কোনো নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিন।

এদিকে দূতাবাসের সামনেই গোলাগুলির ঘটনা ঘটলেও ঠিক কোন স্থানে তা ঘটেছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। একই সাথে এ ঘটনায় কে বা কারা জড়িত তাও স্পষ্ট নয়।

উল্লেখ্য, প্রশাসনিক দুর্নীতি নিয়ে গত কয়েকদিন ধরেই উত্তপ্ত হাইতির রাজধানী। বিভিন্ন সংগঠনের বিক্ষোভের কারণে অস্থির অবস্থা চলছে। এরই মাঝে এই গুলির ঘটনা ঘটল।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে দেশজুড়ে দাঙ্গা দেখা গিয়েছিল। তার জেরে বিক্ষোভ প্রদর্শনে রাস্তায় নামেন কয়েক হাজার হাইতিবাসী। তাদের মুখ্য দাবি ছিল, জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন করতে করতে হবে। এরই জেরে চলতি মাসের গোড়ার দিকে দেশের ক্রমবর্ধমান সমস্যার সমাধানের আশায় নতুন প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ করেন হাইতির প্রেসিডেন্ট জোভেনেল মোই। কিন্তু এর মধ্যেই মার্কিন দূতাবাসের সামনে গোলাগুলি এ ঘটনা ঘটেছে।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top