1. kaium.hrd@gmail.com : ময়মনসিংহ লাইভ ডেস্ক : ময়মনসিংহ লাইভ ডেস্ক
সোনার বিছানায় ঘুমাতে চান, তবে আপনার জন্য প্রস্তুত এই হোটেল
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:১০ পূর্বাহ্ন

সোনার বিছানায় ঘুমাতে চান, তবে আপনার জন্য প্রস্তুত এই হোটেল

ময়মনসিংহ লাইভ কর্তৃক প্রকাশিত
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২২ মার্চ, ২০১৯

প্রাচীনকাল থেকেই সোনা আভিজাত্যের এক অন্যতম প্রতীক। তা সে অলঙ্কারই হোক বা সোনা দিয়ে তৈরি অনান্য নানান চমকপ্রদ জিনিসে। যে তালিকার নবতম সংযোজন সোনা দিয়ে তৈরি ‘বেডকভার’। চমকে উঠলেন নাকি। বিশ্বাস করুন আপনি ইচ্ছা করলেই (তবে পকেট পারমিট করলে) ঘুমাতে পারেন এই সোনার বিছানায়। যার ব্যবস্থা করেছে ইতালির মিলানের পাঁচতারা একটি হোটেল।

বেডকভারটির দাম শুনলে চোখ কপালে উঠে যেতে পারে। মনে হতে পারে দুঃস্বপ্ন দেখছেন। ইতালির ওই হোটেল সংস্থার দাবি বিশ্বের সবচেয়ে দামি বেডকভার এটি। দাম ছ’ অঙ্ক ছাড়িয়ে। বেডকভারটি ২৪ ক্যারেট সোনার দিয়ে বোনা হয়েছে। লিলেন কাপড়ে সোনার সাথে বোনা বেডকভারে ঘুমাতে হলে যে বিপুল গ্যাঁটের কড়ি খসবে তা কি আর বলার অপেক্ষা রাখে?

তবে, সাম্প্রতিক সময়ের জন্য তবে হোটেল সংস্থার পক্ষ থেকে তাদের প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুটের অতিথিদের জন্য বিশেষ এক প্যাকেজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেই অফার অনুযায়ী বাংলাদেশী মুদ্রায় প্রায় আড়াই লাখ টাকা দিলেই এক রাতের জন্য পরশ মিলতে পারে অভিনব এই বেডকভারটির। তাই বা কম কিসের।

উপমহাদেশে কিন্তু সোনার পরশ নেয়ার লোকের অভাব নেই এখনো। ভারতের ‘সোনার ছেলে’র খোঁজ আমরা পাওয়া গেছে।। যিনি ১ কোটি ২৭ লাখ রুপি দিয়ে বানানো সোনার তৈরি শার্ট পরেন। নাম? পুনার বর্ণাঢ্য এই ব্যবসায়ী দত্ত ফুগে। এত্ত দাম বলে যারা আঁতকে উঠছেন, তাদের স্বস্তির জন্য জানাই, বিশ্বের সবচেয়ে মূল্যবান এই জামাটি ৩.৫ কেজি ওজন বিশিষ্ট ২২ ক্যারেট বিশুদ্ধ সোনা দিয়ে তৈরি। তবে কেবল জামাতেই ক্ষান্ত নন এই ‘সোনার ছেলে’। জুতা এমনকি মোবাইল হ্যান্ড সেটটি পর্যন্ত তিনি মুড়ে রেখেছেন খাঁটি সোনা দিয়ে। এছাড়াও রয়েছে সোনার তৈরি কমোড। যার ‘দর্শন’ মেলে প্যারিসে। আর অ্যাপেল যে আইফোন ও আইপ্যাডও সোনায় মুড়ছে সে খবর তো এতদিনে আপনাদের অনেকের কাছেই রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করতে নিচের বাটনগুলোতে চাপ দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ
Mymensingh-IT-Park-Advert
Advert-370
Advert mymensingh live
©MymensinghLive
প্রযুক্তি সহায়তা: ময়মনসিংহ আইটি পার্ক