ময়মনসিংহে মেয়েকে ধর্ষণ : ধর্ষককে বিয়ে করলেন মা!

স্টাফ রিপোর্টার : বিধবা এক নারীকে (২২) ধর্ষণের পর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনা ধামাচাপা দিতে ওই ধর্ষিতা নারীর মাকেই বিয়ে করেছে ধর্ষক হারুন মিয়া (৫২)।

ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলার কাশিনাথপুর গ্রামে। এ দিকে, ধর্ষণের ঘটনায় বর্তমানে স্বামী পরিত্যক্তা ওই মেয়েটি ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা। সোমবার (২ ডিসেম্বর) সকালে অভিযুক্ত ধর্ষক হারুন মিয়াকে গ্রেফতার করে ময়মনসিংহ আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ।

এর আগে রবিবার (১ ডিসেম্বর) রাতে ভুক্তভোগী ওই নারীর পক্ষে তার চাচা ধোবাউড়া থানায় হারুন মিয়াকে আসামি করে একটি ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৬ মাস পূর্বে ধোবাউড়া উপজেলার কাশিনাথপুর গ্রামের হারুন মিয়া একই গ্রামের স্বামী পরিত্যক্তা ও তার চাচাতো বোনকে (২৫) ধর্ষণ করে। এ দিকে, ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে চতুর হারুন মিয়া ভুক্তভোগীর মা ও সম্পর্কে তার চাচিকে তড়িঘড়ি করে বিয়ে করে ফেলে।

পরবর্তীকালে ধর্ষণের ঘটনায় তার চাচাতো বোন ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এ ঘটনা জানার পর ভুক্তভোগীর পক্ষে তার চাচা ধোবাউড়া থানায় হারুন মিয়াকে আসামি করে রবিবার রাতে একটি ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন।

এ দিকে, ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হলে সাধারণ মানুষের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ধোবাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহাম্মদ মোল্লা জানান, মামলার পর আসামি হারুন মিয়াকে গ্রেফতার করে সোমবার ময়মনসিংহ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

sadman travels
error: প্রিয়জন; আপনি লেখা কপি করতে চাচ্ছেন!! অনুগ্রহ করে তা থেকে বিরত থাকুন। আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

Facebook