ময়মনসিংহে করোনার লক্ষণ নিয়ে ৬০ জনের মৃত্যু

corona-updateকোভিড-১৯ বা করোনাভাইসের লক্ষণ ছিল এমন রোগীদের মধ্যে এ পর্যন্ত মোট দুই হাজার ১৮০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তার মধ্যে ময়মনসিংহ বিভাগে মারা গেছেন ৬০জন। এরমধ্যে এক সপ্তাহে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ২১ জুন থেকে ২৭ জুন ২২২ জন। আর এ পর্যন্ত সবচেয়ে কম মৃত্যু হয়েছে যে সপ্তাহে ২২ থেকে ২৮ মার্চ ৩ জন। দেশে ৮ বিভাগের মধ্যে এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ মৃত্যু চট্টগ্রামে ৭২৮ জন। সেন্টার ফর জেনোসাইড স্টাডিজের গবেষণায় এই তথ্য উঠে এসেছে। প্রতিষ্ঠানটি দেশে কোভিড-১৯ মহামারীর শুরু থেকেই এ সংক্রান্ত তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করে আসছে।

প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কোভিড-১৯ এর লক্ষণ ও উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন এমন রোগীদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে চট্টগ্রামে ৭২৮ জন। এরপরই রয়েছে ঢাকায় ৩৯৩ জন।

এছাড়া খুলনায় ৩৪২ জন, বরিশালে ২৪৩ জন, রাজশাহীতে ২১৮ জন, সিলেটে ১০১ জন, রংপুরে ৯৫ জন এবং ময়মনসিংহে ৬০ জন।

সাপ্তাহিক মৃত্যুর হার পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, ৮ মার্চ থেকে ২১ মার্চ পর্যন্ত কোভিড-১৯ এর লক্ষণ ও উপসর্গ নিয়ে কারো মৃত্যু হয়নি। ২২ মার্চ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এরপর পর্যায়ক্রমে ২৯ মার্চ থেকে ৫ এপ্রিল ৬৩ জন; ৬ এপ্রিল থেকে ১১ এপ্রিল ১০৬ জন; ১২ এপ্রিল থেকে ১৮ এপ্রিল শূন্য জন; ১৯ এপ্রিল থেকে ২৫ এপ্রিল ১১৪ জন; ২৬ এপ্রিল থেকে ২মে ৯৩ জন; ৩ মে থেকে ৯ মে ৫০ জন; ১০মে থেকে ১৬ মে ৬৭ জন; ১৬মে থেকে ২৩মে ৪৮ জন; ২৪ থেকে ৩০ মে ৭৩ জন; ৩১ মে থেকে ৬ জুন ১৫৪ জন; ৭ জুন থেকে ১৩ জন ২০৬ জুন; ১৪ থেকে ২০ জুন এই সপ্তাহেও কারও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি।

কিন্তু ২১ থেকে ২৭ জুন মৃত্যু হয় ২২২ জনের; ২৮ জুন থেকে ৪ জুলাই মৃত্য হয় ১৭২ জনের; ৫ জুলাই থেকে ১১ জুলাই ১১০ জন; ১২ জুলাই থেকে ১৮ জুলাই ৭৮ জন; ১৯ জুলাই থেকে ২৫ জুলাই ৭১ জন; ২৬ জুলাই থেকে ১ আগষ্ট ৩৬ জন; ২ আগষ্ট থেকে ৮ আগষ্ট ৬৩ জন; ৯ আগষ্ট থেকে ১৫ আগষ্ট ৫৭ জন; ১৬ আগষ্ট থেকে ২২ আগষ্ট ৪৮ জন; ২৩ আগষ্ট থেকে ২৯ আগষ্ট ১৬ জন এবং ৩০ আগষ্ট থেকে ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কোভিড-১৯ লক্ষণ নিয়ে মৃত্যু করণ করেছে ৫ জন।