মিন্নির জামিন বাতিলের শুনানি ২ ফেব্রুয়ারি

বরগুনার বহুল আলোচিত শাহনেওয়াজ রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় উচ্চ আদালতে জামিনে থাকা নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির জামিন আবেদনের শুনানির দিন আগামী ২রা ফেব্রুয়ারি ধার্য করেছেন আদালত।

রোববার সকাল ১০টার দিকে বরগুনার নারী ও শিশু আদালতের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান শুনানির জন্য পরবর্তী এ তারিখ নির্ধারণ করেন।

মিন্নির আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম বলেন, গত আট জানুয়ারি মিন্নির জামিন বাতিলের জন্য আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। এরপর মিন্নির জামিন কেন বাতিল করা হবে না জানতে চেয়ে আসামিপক্ষকে কারণ দর্শাতে বলা হয়। পরে ১৫ জানুয়ারি কারণ দর্শানোর নোটিশের লিখিত জবাব আদালতে দাখিল করেন মিন্নির আইনজীবী।

রিফাত হত্যা মামলার বাদীপক্ষের মনোনীত আইনজীবী অ্যাডভোকেট এম মজিবুল হক কিসলু বলেন, রোববার এ মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে তিনজনের সাক্ষ্য দেয়ার কথা ছিল। কিন্তু একজন সাক্ষী সৌদি আরব থাকায় দু’জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেছে আদালত। মিন্নির জামিন বাতিলের শুনানি আগামী ২ ফেব্রুয়ারি ধার্য করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

গত বছরের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাত হত্যাকাণ্ড ঘটে। গত ১ সেপ্টেম্বর ২৪ জনকে অভিযুক্ত করে প্রাপ্ত ও অপ্রাপ্তবয়স্ক দু’ভাগে বিভক্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দেয় পুলিশ। এর মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ জন এবং অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ জন। মামলার চার্জশিটভুক্ত প্রাপ্তবয়স্ক আসামি মো. মুসা এখনো পলাতক থাকলেও রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিসহ অপ্রাপ্তবয়স্ক ছয় আসামি জামিনে আছেন।

চলতি মাসের ১ জানুয়ারি রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধ চার্জ গঠন করেন বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালত। এরপর ৮ জানুয়ারি অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন বরগুনার শিশু আদালত।

রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক আসামিরা হলেন, রাকিবুল হাসান রিফাত ফরাজি, আল কাইউম ওরফে রাব্বি আকন, মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, রেজওয়ান আলী খান হৃদয় ওরফে টিকটক হৃদয়, মো. হাসান, মো. মুসা, আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি, রাফিউল ইসলাম রাব্বি, মো. সাগর ও কামরুল ইসলাম সাইমুন।

Share this post

scroll to top