ভারতে শান্তির বার্তা নিয়ে গির্জায় মুসলমানরা

গত সপ্তাহে শ্রীলঙ্কায় যে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে, তার প্রেক্ষিতে গির্জায় গিয়ে সম্প্রীতির বার্তা দিলেন ভারতের মুসলিমরা।

ভারতে নিজামের শহর হায়দরাবাদের নামাপল্লি এলাকায় ১৬৫ বছরের পুরনো গির্জায় খ্রিস্টানদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করতে গিয়েছিলেন মুসলিম সম্প্রদায়ের অনেক সদস্য। এদের মধ্যে তাদের শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দও উপস্থিত ছিলেন।

মূলত সন্ত্রাসের কোনো ধর্ম হয় না এই বার্তা দিতেই গির্জায় হাজির হয়েছেন মুসলিমরা। তারা জানান, অহিংসার এ বার্তাটা সমাজের সকল স্তরে পৌঁছে দেয়াই তাদের প্রধান উদ্দেশ্য।

হায়দরাবাদের সেন্ট জর্জ গির্জায় দেড় শতাধিক মুসলিম হাজির হন সম্প্রীতির বার্তা নিয়ে। নেতৃবৃন্দ ও আলেমরা সেখানে বক্তব্যও রাখেন। তারা বলেন, সন্ত্রাসবাদীরা আমাদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করতে চায়। কিন্তু আজ আমাদের উচ্চস্বরে এবং স্পষ্ট ভাষায় বলতে হবে, আমরা এক সঙ্গে আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকব। এভাবেই আমরা সর্বদা ভালোবাসা এবং সৌভ্রাতৃত্ব ছড়িয়ে যাব।

এ সময় তাদের হাতে থাকা ব্যানার ফেস্টুনে লেখা ছিল, আমরা খ্রিস্টানদের সাথে আছি। শ্রীলঙ্কায় হামলার ভিকটিমদের প্রতি আমাদের সহমর্মিতা। আমরা তোমাদের পাশে আছি ইত্যাদি। এছাড়া তারা ফুল দিয়েও খ্রিস্টানদের সহানুভূতি জানান।

গত ইস্টার সানডেতে শ্রীলঙ্কায় একাধিক গির্জায় হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। গির্জা ছাড়াও হামলা চালানো হয় অনেক হোটেলে। ওই ঘটনায় আড়াই শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়। হামলাকারীদের আক্রমণের মূল লক্ষ্য ছিলেন খ্রিস্টানরা। পরে আইএসসহ দুটি সংগঠন এ হামলার দায় স্বীকার করে। এরপর থেকেই মুসলিমদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ দেখা দিয়েছে পুরো শ্রীলঙ্কা জুড়ে। অনেক মুসলিম মানুষ ঘরছাড়া হয়েছেন।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top