1. kaium.hrd@gmail.com : ময়মনসিংহ লাইভ ডেস্ক : ময়মনসিংহ লাইভ ডেস্ক
ফিঞ্চ মার্শের বীরত্বে সিরিজে এগিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৪০ অপরাহ্ন

ফিঞ্চ মার্শের বীরত্বে সিরিজে এগিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া

ময়মনসিংহ লাইভ কর্তৃক প্রকাশিত
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৩ মার্চ, ২০১৯

অস্ট্রেলিয়ার ফিঞ্চ-মার্শের কীর্তিতে বিফলে গেছে পাকিস্তানের হারিস সোহেলের প্রথম সেঞ্চুরি। গতকাল শুক্রবার শারজায় অনুষ্ঠিত প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে পাকিস্তান আট উইকেটে হেরে যায় অস্ট্রেলিয়ার কাছে। এর ফলে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেল ফিঞ্চের দল।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাটিং করে পাকিস্তান। শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেট হারিয়ে তাদের সংগ্রহ ছিল ২৮০ রান। পরে ব্যাট করতে নেমে এক ওভার বাকি থাকতেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় অস্টেলিয়ানরা।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১১৬ রান করে ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ। ৮টি চার ও ৪টি ছক্কায় এ রান করেন তিনি। তার সাথে যোগ্য সঙ্গ দেন শন মার্শ । তিনি চারটি চার ও দুটি ছক্কায় ৯১ রানে অপরাজিত ছিলেন। এই দুজনের জুটিতেই আসে ১৭২ রান। তবে আরেক ওপেনার উসমান খাজা এদিন তেমন রান করতে পারেননি। মাত্র ২৪ রান করেই তিনি বিদায় নেন। দলীয় ২৩৫ রানে অ্যারন ফিঞ্চ আউট হওয়ার মাঠে আসেন হ্যান্ডসকম্ব। এরপর মার্শ ও হ্যান্ডসকম্ব দেখেশুনে খেলে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিয়ে আসেন। ফলে মাত্র দুই উইকেট হারিয়েই সিরিজের প্রথম ম্যাচ নিজেদের করে নেয় অজিরা।

এর আগে হারিস সোহেলের অনবদ্য সেঞ্চুরিতে ৫ উইকেটে পাকিস্তান সংগ্রহ করেছিল ২৮০ রান। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ১০১ রান করে অপরাজিত থাকেন হারিস। ৬টি চার ও একটি ছক্কায় তিনি তার ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরিটি করেছিলেন।

তিনি ছাড়া পাকিস্তানের উল্লেখযোগ্য স্কোর করেন অভিষিক্ত খেলোয়াড় শান মাসুদ (৪০) এবং দুই বছর পর দলে ফেরা উমর আকমল (৪৮)। এছাড়া ইনিংসের শেষ পর্যায়ে এসে ঝড়ো ব্যাটিং করেন ইমাদ ওয়াসিম। মাত্র ১৩ বল খেলে চারটি চার ও একটি ছক্কায় তিনি সংগ্রহ করেন ২৮ রান। ফলে পাকিস্তানের স্কোর গিয়ে পৌঁছায় ২৮০-তে। তবে শেষ পর্যন্ত এ স্কোরও জয়ের জন্য যথেষ্ট হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করতে নিচের বাটনগুলোতে চাপ দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ
Mymensingh-IT-Park-Advert
Advert-370
Advert mymensingh live
©MymensinghLive
প্রযুক্তি সহায়তা: ময়মনসিংহ আইটি পার্ক