1. kaium.hrd@gmail.com : ময়মনসিংহ লাইভ ডেস্ক : ময়মনসিংহ লাইভ ডেস্ক
  2. kaiu.m07bics@gmail.com : News Desk : News Desk
  3. kaiu.m.07bics@gmail.com : News Desk : News Desk
‘গায়ক আসিফকে বিয়ের জন্য চাপ দিয়েছিলেন অভিনেত্রী দীপা’
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন

‘গায়ক আসিফকে বিয়ের জন্য চাপ দিয়েছিলেন অভিনেত্রী দীপা’

ময়মনসিংহ লাইভ কর্তৃক প্রকাশিত
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৮ মে, ২০২২

জনপ্রিয় গায়ক ও বাংলা গানের যুবরাজ খ্যাত আসিফ আকবরকে বিয়ের জন্য চাপ দিয়েছিলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী দীপা খন্দকার। এমনকি গভীর রাতে আসিফের বাসায় গিয়ে তার স্ত্রীর কাছে বিয়ের অনুমতিও চেয়েছিলেন দীপা।

সম্প্রতি প্রকাশিত নিজের জীবনীগ্রন্থ ‘আকবর ফিফটি নট আউট’-এ প্রসঙ্গটি এনেছেন আসিফ।সাহস পাবলিকেশন্স থেকে প্রকাশিত বইটিতে আসিফ ও দীপার প্রেমের উপাখ্যান বিস্তারিত বর্ণনা করেছেন বইটির লেখক সোহেল অটল।

বই থেকে জানা গেছে, শিল্পী হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাওয়ার পর আমেরিকা ট্যুরে গিয়ে আসিফ-দীপার ঘনিষ্ঠতা হয়। তাদের প্রেমের সূত্রপাত সেখান থেকেই। টানা কয়েক বছর প্রেম করার পর আসিফকে বিয়ের জন্য চাপ দেন দীপা। আসিফকে তার স্ত্রী-সন্তান ছেড়ে আসার জন্যও বলেন। আসিফ রাজি না হওয়ায় তার বাসায় গিয়ে স্ত্রী মিতুর কাছে বিয়ের অনুমতি চেয়েছিলেন দীপা। এমনকি বিয়ে না করলে দীপা আত্মহত্যা করবেন বলেও আসিফের মনে হয়েছিল।

বইয়ের ২৫১ পৃষ্ঠায় লেখা হয়েছে, ‘একদিন রাত দুটোর সময় আসিফের সঙ্গে তার বাসায় যান দীপা খন্দকার। সেখানে গিয়ে আসিফের স্ত্রী মিতুর কাছে বিয়ের অনুমতি চান তিনি।’

বইয়ে লেখা বর্ণনামতে- ওই রাতে বাসায় গিয়ে দীপা আসিফের স্ত্রী মিতুকে বলেন, ‘আসলে আমেরিকা থেকে আমাদের সম্পর্কটা শুরু হয়। এখন ও (আসিফ) আমাকে বিয়ে করতে চাচ্ছে না। বলছে দুই দিক একসঙ্গে সামলাতে পারবে না। আপনি আমাদের বিয়ে করার অনুমতি দিন প্লিজ। সেদিন আসিফের স্ত্রী তাকে বিয়ের অনুমতি দেননি। এ ঘটনার কিছুদিন পর দীপা খন্দকার বিয়ে করেন নির্মাতা শাহেদ আলী সুজনকে ‘

বইয়ে লেখা বর্ণনায় আরও বলা হয়েছে, দীপা খন্দকারকে আমেরিকা পাঠিয়ে দিতে চেয়েছিলেন আসিফ। সেখানেই বিয়ে করে রাখতে চেয়েছিলেন দীপাকে। কিন্তু দীপা আসিফের সে প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।

বইটির ৩৬২ পৃষ্ঠায় লেখা রয়েছে, ‘দীপার কথা ভাবলে মনে হয়, দীপা ব্যক্তিত্বসম্পন্ন মেয়ে ছিল বলেই তাকে ভালোবেসেছিলেন। শ্রদ্ধাবোধ থেকেই দীপার প্রতি অনুরক্ত হয়েছিলেন। দীপার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কটা নেই আসিফের, তবে শ্রদ্ধাটা রয়ে গেছে।’

নিউজটি শেয়ার করতে নিচের বাটনগুলোতে চাপ দিন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
Mymensingh-IT-Park-Advert
Advert-370
Advert mymensingh live
©MymensinghLive
প্রযুক্তি সহায়তা: ময়মনসিংহ আইটি পার্ক