1. kaium.hrd@gmail.com : ময়মনসিংহ লাইভ ডেস্ক : ময়মনসিংহ লাইভ ডেস্ক
কাশ্মির সীমান্তে আবারো উত্তেজনা : তিন পাকিস্তানি ও এক ভারতীয় সেনা নিহত
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:২৮ অপরাহ্ন

কাশ্মির সীমান্তে আবারো উত্তেজনা : তিন পাকিস্তানি ও এক ভারতীয় সেনা নিহত

ময়মনসিংহ লাইভ কর্তৃক প্রকাশিত
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল, ২০১৯

কাশ্মিরের নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর ভারতীয় মর্টারের গোলায় তিন পাকিস্তানি সেনা নিহত হয়েছেন। পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী গণসংযোগ অধিদফতরের (আইএসপিআর) এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানা গেছে। অন্যদিকে দুই পক্ষের গোলাগুলিতে ভারতের এক সেনাসদস্য নিহত হয়েছে।

আইএসপিআর জানায়, মঙ্গলবার সকালে ভারতীয় বাহিনী বিনা উসকানিতে নিয়ন্ত্রণরেখার রাওয়ালাকট সেক্টরে গোলাবর্ষণ করলে তাদের তিন সেনা নিহত হন। নিহতরা হলেন- মোহাম্মদ রিয়াজ, আজিজুল্লাহ ও শহিদ মানসাব। এদিকে কাশ্মির সীমান্ত বরাবর পাক-ভারত গোলাবিনিময়ে এক ভারতীয় সেনা ও এক শিশুসহ তিনজন নিহত হয়।

পুলওয়ামায় আত্মঘাতী হামলার পর পরমাণু শক্তিধর দুই দেশের মধ্যে সর্বশেষ এ রক্তক্ষয়ের ঘটনা ঘটেছে। ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল দেবেন্দর বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, পাকিস্তানের সাথে গোলাবিনিময়ে তাদের এক সেনা নিহত হওয়াসহ বেশ কয়েকজনের হতাহতের ঘটনা ঘটেছে।

২০১৮ সালের পর আরো একটি রক্তক্ষয়ী বছর পার করতে যাচ্ছে কাশ্মির। গত জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত এ অঞ্চলে সংঘাতে ২১ বেসামরিক লোকসহ ১৬২ জন নিহত হয়েছেন। গত বছরের একই সময়ে ১১৯ জন নিহত হয়েছিলেন।

১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় এক কাশ্মিরি তরুণের আত্মঘাতী বোমা হামলায় ভারতের একটি আধাসামরিক বাহিনীর ৪৪ জওয়ান নিহত হন। পরে এ নিয়ে দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে বেশ কয়েকদফা বিমান হামলাও হয়ে গেছে। এতে ভারতীয় বিমানবাহিনীর এক পাইলটকে আটক করার পর শান্তির নিদর্শন হিসেবে তাকে কোনো শর্ত ছাড়াই ফেরত পাঠিয়েছে পাকিস্তান।

আত্মরক্ষায় সবরকমের অস্ত্র ব্যবহার করতে পারে পাকিস্তান
এদিকে পাকিস্তান সামরিক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আত্মরক্ষার জন্য তারা যে কোনো ধরনের অস্ত্র ব্যবহার করার অধিকার রাখে। ২৬ ফেব্রুয়ারি ভারত পাকিস্তানের সীমান্ত লঙ্ঘন করে হামলা চালানোর পর পাকিস্তানও হামলা চালায় ভারতে। সে সময় হামলা ছাপিয়ে আরেকটি বিতর্ক ওঠে আসে। ভারত দাবি করছিল, পাকিস্তান এসব হামলায় মার্কিন এফ-১৬ বিমান ব্যবহার করেছিল, এগুলো কেনার শর্ত অনুসারে যা তারা করতে পারে না। তখন পাকিস্তান দাবি করেছিল, তারা জেএফ-১৭ বিমান ব্যবহার করেই এ হামলা চালিয়েছিল।

কিন্তু পাকিস্তান সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর সম্প্রতি এক বক্তব্যে বলেন, ভারত যা কিছু ভাবতে পারে৷ শুধু এফ-১৬ কেন, আত্মরক্ষার্থে সবরকমের অস্ত্র ব্যবহার করতে পারে পাকিস্তান। তিনি আরো বলেন, ২৭ ফেব্রুয়ারির ঘটনা ইতিহাস তৈরি করেছে৷ পাকিস্তান এফ-১৬ ব্যবহার করেছে কিনা সেটা বড় কথা নয়৷ পাকিস্তান এয়ার ফোর্স ভারতের দুটো বিমানকে গুলি করে নামিয়েছে এটাই বড় কথা৷ আমাদের কোনো এফ-১৬ ধ্বংস হয়নি।

ভারত দাবি করছে, কোনো দেশকে আক্রমণের ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারবে না এফ-১৬৷ এই শর্তেই আমেরিকার থেকে এফ-১৬ বিমান কিনেছিল পাকিস্তান৷ স্বাভাবিকভাবেই এফ-১৬ নিয়ে কীভাবে ভারতে ঢুকে হামলা চালাতে পারে পাকিস্তান সেই অভিযোগ করে যুক্তরাষ্ট্রকে তথ্য দেয়া হয় ভারতের পক্ষ থেকে৷ পাকিস্তান এতদিন পর্যন্ত ভারতের এ অভিযোগ অস্বীকার করে আসছিল। সূত্র : জিইও নিউজ

নিউজটি শেয়ার করতে নিচের বাটনগুলোতে চাপ দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ
Mymensingh-IT-Park-Advert
Advert-370
Advert mymensingh live
©MymensinghLive
প্রযুক্তি সহায়তা: ময়মনসিংহ আইটি পার্ক